সেই হাত

অভিনব দুটি হাতে দেয়াল দরোজা খুলে দাও।ততক্ষণে রোদ্দুর পৌচেছেগোটারাত ঘুরে ঘুরে রোদ্দুর পৌঁচেছেঘরে।কিছুটা নড়বড়েছিলো ঘর।এককোণে পাথরতেমন সন্তুষ্ট নয়, ‘দখল দখল শব্দ করে।দাবি তার ঘরটি ভরাবেমানুষের মাথায় চড়াবেতার ভার।আরযদি পারেগিলে খাবে মানুষের স্বপ্ন নিয়ে বাঁচাঅন্ধকারে!তা কি হয়?রোদ্দুরের ফুল ফোটেঘরে যে-হাতে দরোজা খোলোসেই হাত শানাও পাথরে!

সেই হাত

অভিনব দুটি হাতে দেয়াল দরোজা খুলে দাও।
ততক্ষণে রোদ্দুর পৌচেছে
গোটারাত ঘুরে ঘুরে রোদ্দুর পৌঁচেছে
ঘরে।
কিছুটা নড়বড়ে
ছিলো ঘর।
এককোণে পাথর
তেমন সন্তুষ্ট নয়, ‘দখল দখল শব্দ করে।
দাবি তার ঘরটি ভরাবে
মানুষের মাথায় চড়াবে
তার ভার।
আর
যদি পারে
গিলে খাবে মানুষের স্বপ্ন নিয়ে বাঁচা
অন্ধকারে!
তা কি হয়?
রোদ্দুরের ফুল ফোটে
ঘরে যে-হাতে দরোজা খোলো
সেই হাত শানাও পাথরে!